Home মাধ্যমিক পাঠদানের ধারাবাহিকতা: তিন মাস অ্যাসাইনমেন্ট দেয়ার উদ্যোগ

পাঠদানের ধারাবাহিকতা: তিন মাস অ্যাসাইনমেন্ট দেয়ার উদ্যোগ

616
0
নতুন পরীক্ষাপদ্ধতি বাস্তবায়ন কঠিন

করোনা পরিস্থিতিতে বন্ধ রাখা হয়েছে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এরই মধ্যে চলে এসেছে নতুন শিক্ষাবর্ষ ২০২১। শিক্ষার্থীদের পাঠদানের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে আরও তিন মাস অ্যাসাইনমেন্ট দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

জানা গেছে, ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট করতে হবে। জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) নির্ধারিত সিলেবাসের আওতায় শিক্ষার্থীদের শিখন মূল্যায়নের জন্য এটি প্রণয়ন করেছে। আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত এ সিলেবাস নির্ধারণ করে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরে পাঠিয়েছে এনসিটিবি কর্তৃপক্ষ।

তবে নতুন এ শিক্ষাবর্ষে প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের কোনো অ্যাসাইনমেন্ট দেয়া হবে না বলে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে।

মাউশি সূত্রে জানা গেছে , বাংলা, ইরেজি, গণিত, বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয়, বিজ্ঞান, কৃষিশিক্ষা ও গার্হস্থ্য বিজ্ঞান- এ সাতটি বিষয়ের প্রণীত সিলেবাস ও অ্যাসাইনমেন্টের হার্ড এবং সফট কপি মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরে (মাউশি) পাঠিয়েছে এনসিটিবি। পর্যায়ক্রমে অন্য বিষয়গুলোর সিলেবাস ও অ্যাসাইনমেন্ট পাঠানো হবে। একইসঙ্গে নতুন শিক্ষাবর্ষে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনা চালিয়ে নিতে ফের চালু হবে সংসদ টিভি, রেডিওসহ অনলাইন ক্লাস।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) এনসিটিবি চেয়ারম্যান অধ্যাপক নারায়ণ চন্দ্র সাহা বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কবে খুলছে তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। তবে এ বন্ধ সময়ের মধ্যে আমরা এপ্রিল পর্যন্ত একটি পাঠ পরিকল্পনা তৈরি করেছি। সেটির ভিত্তিতে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট দেয়া হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘নতুন শিক্ষাবর্ষের আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত অ্যাসাইনমেন্ট দিতে মাউশিতে পাঠানো হয়েছে। মাউশি এটি পরিচালনা করবে। অতীত অভিজ্ঞতার আলোকে শিক্ষকরা অ্যাসাইনমেন্ট গ্রহণ করবেন এবং শিক্ষার্থীর উন্নতি বা অবনতি মূল্যায়ন করতে পারবেন।’

Print Friendly, PDF & Email
শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here