Home বিশ্ববিদ্যালয় জাবি শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার অনুরোধ, উপেক্ষা করলেন শিক্ষার্থীরা

জাবি শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার অনুরোধ, উপেক্ষা করলেন শিক্ষার্থীরা

46
0

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে (জাবি) আবাসিক হলের তালা ভেঙে ভেতরে অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার অনুরোধ জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট হল প্রশাসন। তবে হল প্রশাসনের এমন সিদ্ধান্তকে উপেক্ষা করে হলে অবস্থান করার ঘোষণা দিয়েছেন বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীরা।
আজ সোমবার (২২ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১০টায় হল ছাড়ার নির্দেশের সময় শেষ হওয়ার পরেও শিক্ষার্থীরা হল ছাড়েননি। পরে বেলা সাড়ে ১১টায় হলে হলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার অনুরোধ জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট হল প্রশাসন।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাধ্যক্ষ কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মোতাহার হোসেন বলেন, শিক্ষার্থীদের হলে অবস্থানের বিষয়টি নিয়ে আমরা একটি বৈঠক করছি। বৈঠক শেষে আমরা প্রতিটি হলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের চলে যেতে বলেছি। তারা আমাদের প্রস্তাব মানেনি। তাই পরবর্তীতে আলোচনা সাপেক্ষে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নগর অঞ্চল পরিকল্পনা বিভাগের শিক্ষার্থী সোলাইমান কবির বলেন, গতপরশু হামলার ঘটনার পর স্থানীয় এলাকায় আমাদের নিরাপত্তা নেই। স্থানীয় বাসা মালিকরা আমাদেরকে বাসা ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দিচ্ছেন। এই অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের এমন নির্দেশ আমাদেরকে হতাশ করছে। একটা স্বায়ত্তশাসিত বিশ্ববিদ্যালয়ে সরকারি সিদ্ধান্তের অপেক্ষায় থাকাটা মানায় না বরং তাদের উচিত ছিল শিক্ষার্থীদের কথা ভাবা।
বিশ্ববিদ্যালয়ের আ ফ ম কামালউদ্দিন হলের প্রাধ্যক্ষ ও ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আ স ম ফিরোজ উল হাসান বলেন, আমরা শিক্ষার্থীদের হল ত্যাগের জন্য অনুরোধ করেছি। তারা হল ছাড়তে রাজি হয়নি। এখন বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন শিক্ষার্থীদের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে।

এর আগে, রবিবার দিবাগত রাত ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার রহিমা কানিজ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলের তালা ভেঙে ভেতরে অবস্থানরত ছাত্ররা সোমবার সকাল ১০টার মধ্যে হল ত্যাগ না করলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে গেরুয়ার স্থানীয় লোকজনের সংঘর্ষের জেরে গত শনিবার উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে তিন দফা দাবি পেশ করেন শিক্ষার্থীরা। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন শিক্ষার্থীদের দুটি দাবি মেনে নিলেও রাষ্ট্রীয় বিধিনিষেধ থাকায় শিক্ষার্থীদের হলে ওঠার দাবি মেনে নেয়নি। পরে ছাত্ররা হলের তালা ভেঙে স্বস্ব হলে অবস্থান নেন।

Print Friendly, PDF & Email
শেয়ার করুন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here