• চাকরির খবর
  • এ সপ্তাহে ৪৬তম বিসিএস প্রিলিমিনারির নতুন তারিখ নির্ধারণ

এ সপ্তাহে ৪৬তম বিসিএস প্রিলিমিনারির নতুন তারিখ নির্ধারণ

সরকারি কর্ম কমিশনের বিশেষ সভায় এ সপ্তাহে ৪৬তম বিসিএসের প্রিলিমিনারির নতুন তারিখ নির্ধারণ করা হবে। পিএসসির একটি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

পিএসসির সূত্রটি গত বৃহস্পতিবার জানায়, ‘৪৫তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার কারণে পিএসসির সদস্যরা ঢাকার বাইরে ছিলেন। এ জন্য কমিশনের সভা হয়নি। লিখিত পরীক্ষা শেষে সদস্যরা ঢাকায় এসেছেন। আশা করছি আগামী (চলতি) সপ্তাহে বিশেষ সভায় প্রিলিমিনারির বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

৪৬তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার তারিখ নিয়ে প্রার্থীরা উদ্বেগের মধ্যে আছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চাকরির গ্রুপগুলোতে অনেক চাকরিপ্রার্থী উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। প্রথম আলো অফিসে ফোন করেও অনেক প্রার্থী পরীক্ষার তারিখ নিয়ে অনিশ্চয়তার কথা জানিয়েছেন।

বিষয়টি পিএসসির নজরে আনা হলে পিএসসি থেকে জানানো হয়, প্রিলিমিনারি পরীক্ষার তারিখ নিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই। নতুন তারিখ নির্ধারণ হলে যথাসময়ে পিএসসির ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হবে। পরীক্ষার তারিখ নিয়ে দুশ্চিন্তা না করে ভালোভাবে প্রস্তুতি নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

পিএসসি সূত্র জানায়, বড় বড় সিদ্ধান্ত নিতে সাধারণত কমিশন সভা ডাকে পিএসসি। ৪৬তম বিসিএসের প্রিলিমিনারির তারিখ পরিবর্তন একটি বড় ঘটনা। এখানে সদস্যরা যেটি ভালো মনে করে মতামত দেবেন, কমিশন সভায় সেটিই সিদ্ধান্ত হিসেবে গণ্য হবে। তাই ৪৬তম বিসিএসের তারিখ সম্পর্কে জানতে কমিশনের সভার সিদ্ধান্ত পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

ওই সূত্র জানায়, ৪৬তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষার তারিখে পরিবর্তন আসতে পারে। আগামী ৯ মার্চ ময়মনসিংহ ও কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের নির্বাচন থাকায় এ পরীক্ষার তারিখে পরিবর্তন আসতে পারে।

আগামী ৯ মার্চ ৪৬তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা নেওয়ার দিন ঠিক ছিল। পিএসসি এ বিষয়ে পরীক্ষার তারিখ জানিয়ে বিজ্ঞপ্তিও প্রকাশ করেছিল। তবে সিটি করপোরেশন নির্বাচনের কারণে পরীক্ষার তারিখে পরিবর্তন হতে পারে। ঢাকা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, খুলনা, বরিশাল, সিলেট, রংপুর ও ময়মনসিংহ কেন্দ্রে একযোগে ৪৬তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এ বিসিএসে ৩ হাজার ১৪০টি পদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি নেওয়া হবে স্বাস্থ্য ক্যাডারে। এই বিসিএসে সহকারী সার্জন ১ হাজার ৬৮২ জন, সহকারী ডেন্টাল সার্জন ১৬ জন নেওয়া হবে। এরপর সবচেয়ে বেশি নেওয়া হবে শিক্ষা ক্যাডারে। বিভিন্ন বিষয়ে এই ক্যাডার থেকে বিসিএস শিক্ষায় ৫২০ জন নেওয়া হবে। প্রশাসনে ২৭৪, পররাষ্ট্রে ১০, পুলিশে ৮০, আনসারে ১৪, মৎস্যে ২৬ ও গণপূর্তে ৬৫ জন নেওয়া হবে।