শিরোনাম
  • মেলায় যাই রে...গানটি বিটিভির ‘আনন্দ মেলা’ অনুষ্ঠানে প্রথম উপস্থাপন  ইসরাইলে হামলায় যেসব ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করেছে ইরান পঞ্চম গণবিজ্ঞপ্তিতে আবেদন শুরু বুধবার চলবে ৯ মে রাত ১২টা পর্যন্ত  আলপনার রঙে রাঙানো হচ্ছে হাওরের ১৪ কিলোমিটার সড়ক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বাংলা নববর্ষ উদযাপনের নির্দেশনায় যা আছে সপ্তম শ্রেণির ‌‌বিতর্কিত 'শরীফার গল্প' সংশোধন কতদূর? বাংলা বর্ষপঞ্জিতে যুক্ত হলো নতুন বর্ষ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ: পহেলা বৈশাখ আজ মুক্তিপণ দিয়েই জিম্মি থাকা ২৩ নাবিক ও এমভি আবদুল্লাহ জাহাজ মুক্ত পূর্ণাঙ্গ উৎসব ভাতার দাবিতে পতাকা হাতে বেসরকারি শিক্ষক-কর্মচারীদের বিক্ষোভ ১০ দেশে অল্প খরচে পড়তে পারেন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা
    • ইউজিসি
    • জাতীয় বাজেটের ৬ শতাংশ শিক্ষা খাতে বরাদ্দের দাবি ইউজিসির

    জাতীয় বাজেটের ৬ শতাংশ শিক্ষা খাতে বরাদ্দের দাবি ইউজিসির

    বর্তমানে দেশে শিক্ষা খাতে মোট বরাদ্দ জিডিপির ২ শতাংশের কম। শিক্ষা খাতে এত কম বরাদ্দ দক্ষিণ এশিয়ার কোনো দেশে নেই। কিশোরগঞ্জে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বিশ্ববিদ্যালয় দিবস’ উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ আলমগীর এসব কথা বলেন।

    গতকাল ইউজিসির জনসংযোগ ও তথ্য অধিকার বিভাগের পরিচালক ড. শামসুল আরেফিনের পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ বিষয়ে জানানো হয়েছে।

    ড. আলমগীর বলেন, এই স্বল্প বাজেট দিয়ে গুণগত শিক্ষা নিশ্চিত করা চ্যালেঞ্জিং বিষয়। উচ্চশিক্ষার কৌশলগত পরিকল্পনা বাস্তবায়নে ২০৩০ সালের মধ্যে মোট জাতীয় বাজেটের ৬ শতাংশ শিক্ষা খাতে বরাদ্দের দাবি জানান তিনি।

    তিনি আরও বলেন, ‘দেশে ২০টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় অস্থায়ী ক্যাম্পাসে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করছে। এতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্য ব্যাহত হচ্ছে।’

    নতুন বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে দ্রুততম সময়ে একাডেমিক ও ভৌত অবকাঠামোর মাস্টারপ্ল্যান তৈরি এবং এ অনুসারে স্মার্ট ক্যাম্পাস প্রতিষ্ঠায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে তিনি আহ্বান জানান।

    প্রতি জেলায় বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনে বর্তমান সরকারের উদ্যোগ বিষয়ে ইউজিসি (অতিরিক্ত দায়িত্ব) চেয়ারম্যান বলেন, দেশে মোট জনগোষ্ঠীর মাত্র ১০-১২ শতাংশ উচ্চশিক্ষা গ্রহণের সুযোগ পাচ্ছে। মেধা ও জ্ঞানভিত্তিক প্রজন্ম তৈরির মাধ্যমে ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে একটি উন্নত ও আত্মনির্ভরশীল দেশ হিসেবে রূপান্তর করতে উচ্চশিক্ষা গ্রহণকারীর সংখ্যা ৭০ শতাংশে উন্নীত করতে হবে। সে ক্ষেত্রে দেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা আরো বাড়াতে হবে এবং সেখানে গুণগত মানসম্পন্ন শিক্ষা প্রদান করতে হবে।

    অনুষ্ঠানের সভাপতির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক পারভেজ সাজ্জাদ বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক মাস্টারপ্ল্যানের আওতায় এই বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণের কাজ এগিয়ে নিতে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।